ইরান-যু্ক্তরাষ্ট্রের যুদ্ধ পরিস্থিতির মধ্যেই বাড়লো তেলের দাম

ইরানের শীর্ষ জেনারেল কাসেম সোলায়মানিকে হামলা চালিয়ে হত্যা করেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। এরপরই দুই দেশের মধ্যে যুদ্ধ পরিস্থিতি বিরাজ করছে। এমন অবস্থায় আকস্মিকভাবে বিশ্ববাজারে তেলের দাম চার শতাংশ বেড়ে গিয়েছে। মার্কিন প্রেসিডেন্টের নির্দেশে ইরাকের উপর এয়ারস্ট্রাইক হওয়ার পরই তেলের দাম বেড়ে হয়েছে ব্যারেল প্রতি ৭০ টাকা।

বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে ইরাকের বাগদাদ বিমানবন্দরে হামলা চালিয়ে সোলায়মানিকে হত্যা করেছে যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন প্রেসিডেন্টে নির্দেশে হামলা চালিয়ে তাকে হত্যা করা হয়েছে বলে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা দপ্তর পেন্টাগন। ওই হামলায় ইরাকের মিলিশিয়া নেতাসহ সাতজন নিহত হয়েছেন।

ইরানি জেনারেলকে হত্যার প্রভাবে পারস্য উপসাগরীয় অঞ্চলে তৈরি হয়েছে কার্যত যুদ্ধের পরিস্থিতি। উপযুক্ত জবাব দেওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন সেদেশের প্রেসিডেন্ট আয়োতুল্লা খামেনী।

সোলায়মানি ইরানের এলিট ফোর্স কুদসের প্রধান ছিলেন এবং তিনি ছিলেন সরাসরি আয়াতুল্লাহ খামেনীর অধীনে। দেশবাসীর চোখে তিনি ছিলেন একজন হিরো। এই হামলার ফলে ফের মধ্যপ্রাচ্য অশান্ত হবে এমনটাই আশঙ্কা।

বিবিসি জানিয়েছে, ট্রাম্প সরকারের দাবি ইরাকে থাকা আমেরিকান দূতাবাস ঘিরে বিক্ষোভ ও হামলায় ইন্ধন দিয়েছে ইরান। পাশাপাশি, বাগদাদের ইরানি দূতাবাসের উপরে মার্কিন ব্ল্যাক হক ঘুরতে থাকায় পরিস্থিতি উত্তপ্ত।

ইরানি সংবাদ সংস্থা ইরনা জানিয়েছে, দেশের সর্বোচ্চ নেতা তথা আয়াতুল্লাহ খামেনী যুক্তরাষ্ট্রকে তীব্র কটাক্ষ করেছেন। তার নির্দেশ মতোই পরবর্তী পদক্ষেপ নেবে তেহরান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *