দুর্নীতি-সন্ত্রাসের রোল মডেল বিএনপি: তথ্যমন্ত্রী

তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, ‘বিএনপিই দুর্নীতি-ধর্ষণ-সন্ত্রাসের রোল মডেল। এ বিশেষণ তাদের বেলাতেই  প্রযোজ্য, যা তারা অন্যদের ওপর চাপিয়ে দিতে চেয়েছে।’

রবিবার (১ ডিসেম্বর) ধানমন্ডিস্থ আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের প্রচার ও প্রকাশনা উপ-কমিটির সভা শেষে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।

ড. হাছান বলেন, ‘বিএনপির নেতৃত্বে বাংলাদেশ পরপর পাঁচবার বিশ্বে দুর্নীতিতে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। বেগম জিয়া নিজে কালো টাকা সাদা করেছেন এবং এতিমের টাকা আত্মসাৎ করার অপরাধে সাজা ভোগ করছেন। তার পুত্র কোকো’র পাচার করা অর্থ দেশে ফেরত আনা হয়েছে এবং তাদের দুর্নীতির বিষয়ে এফবিআই এসে সাক্ষ্য দিয়ে গেছে।’

তিনি বলেন, ‘আর যদি সন্ত্রাসের কথা বলেন, তবে ২০১৩-১৪-১৫ সালে বিএনপি জনগণের ওপর পেট্রোল বোমা নিক্ষেপ করে মানুষকে পুড়িয়ে হত্যাসহ যে সন্ত্রাস পরিচালনা করেছে, তা বিশ্বরাজনীতিতে নজীরবিহীন। বিএনপি রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাস করে প্রকাশ্য দিবালোকে গ্রেনেড হামলায় তারা জননেত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যা করতে চেয়েছে, আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীসহ সাধারণ মানুষদের হতাহত করেছে। শাহ এএমএস কিবরিয়া, আহসানউল্লাহ মাস্টারকে হত্যা করেছে।’

এই বিএনপিই আওয়ামী লীগকে ভোট দেবার অপরাধে পাঁচ বছরের শিশু, বার বছরের কিশোরীকে ধর্ষণ করেছে বলেও দাবি করেন আওয়ামী লীগের এ মুখপাত্র।

জামালপুরে সিপিবি’র সমাবেশে হামলাকে ন্যাক্কারজনক অভিহিত করে আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক ড.  হাছান বলেন, ‘আওয়ামী লীগ কখনও এধরনের হামলা সমর্থন করে না। আমরা এর তীব্র প্রতিবাদ জানাই। এটি কোনোভাবেই সমীচীন নয়।’

প্রধানমন্ত্রীকে দেয়া চিঠির জবাব না পেয়ে বিএনপির তথ্য অধিকার আইনের আশ্রয় নেবার বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘ভারত সফরে স্বাক্ষরিত সমঝোতা স্মারকসহ সফরের সব বিষয় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সংবাদ সম্মেলনে, সংসদে এবং প্রথানুযায়ী মহামান্য রাষ্ট্রপতিকে পূর্বেই অবহিত করেছেন। এরপরও এমন চিঠি দেয়া বা অনর্থক তথ্য অধিকারের কথা বলা রাজনৈতিক নাটক ছাড়া কিছু নয়।’

এসময় দুর্ঘটনায় দুই শিক্ষার্থী নিহতের বিচারের রায়ের প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘দ্রুত বিচারের এ রায় সড়ক দুর্ঘটনা রোধে সহায়ক হবে।’

আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক বলেন, ‘জাতীয় সম্মেলন সামনে রেখে প্রচার উপ-কমিটি ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে। প্রত্যেক ডেলিগেটের জন্য যে পাটের ব্যাগ দেয়া হবে, সেখানে প্রয়োজনীয় তথ্যাদি-বক্তৃতার কপিসহ ফোল্ডার, পানির বোতল এবং ডায়াবেটিকদের দিকে লক্ষ্য রেখে দু’টি লজেন্সও থাকবে।’

এসময় প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এবং আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা উপ-কমিটির চেয়ারম্যান এইচ টি ইমাম বলেন, ‘অত্যন্ত কর্মতৎপর ও তারকাখচিত আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা উপ-কমিটি দলের জন্য অনন্য ভূমিকা রেখে চলেছে। সকল গণমাধ্যম আমাদের সাথে থাকবেন বলে আমরা আশা করি।’

এইচ টি ইমামের সভাপতিত্বে সভায় ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার, তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান, সংসদ সদস্য শেখ তন্ময়, আওয়ামী লীগের উপ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিনসহ উপ-কমিটির সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *