ঘুমন্ত রেলওয়ে কর্মচারীকে কুপিয়ে খুন

ঘড়ির কাঁটায় তখন কয়টা বাজে জানা নেই। তবে রাতের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে মাহবুব আলমের (৪০) ঘুম আরও গাঢ় গভীর হচ্ছিল। কিন্তু এ জীবনে আর নতুন সকাল দেখা হলো না তার। ঘাতকের অস্ত্রের আঘাত তাকে আর কোনও দিন জাগতে দেবে না।

বুধবার গভীর রাতে কিশোরগঞ্জের ভৈরবে দুর্বৃত্তদের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে মাহবুব আলম নামে এই রেলওয়ে কর্মচারীকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এসময় স্বামীকে বাঁচাতে গিয়ে আহত হয়েছেন মাহবুবের স্ত্রী রোকসানা বেগম (৩৪)। গুরুত্বর আহত অবস্থায় তাতে স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

ভৈরব থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বাহালুর খান বাহার স্থানীয়দের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি জানান, ভৈরব শহরের চণ্ডিবের এলাকায় নিজ বাসায় মাহবুবকে ঘুমন্ত অবস্থায় কুপিয়ে হত্যা করা হয়।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, বুধবার রাতে ১১ দিকে খাওয়াদাওয়া শেষে স্ত্রী ও তিন সন্তানদের নিয়ে ঘুমিয়ে পড়েন। বৃহস্পতিবার ভোরে রোকসানার কান্না শুনে প্রতিবেশীরা এগিয়ে এলে মাহবুবের নিথর দেহ পড়ে থাকতে দেখা যায়। এসময় রোকসানাকে দ্রুত উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়।

এসময় এলাকাবাসী পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে নিহতের লাশ উদ্ধার করে।

এ হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে কারা এবং কেন জড়িত তা খুঁজে বের করার চেষ্টা চলছে বলেও জানান ওসি বাহার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *